Breaking News

হোমনায় ক্যান্সারে আক্রান্ত দুই সন্তানের জননী রহিমা বেগমের পাশে দাঁড়িয়েছে সমাজ সেবক দেলোয়ার মমিন,

মো.আব্দুল হক সরকার
কুমিল্লার হোমনায় দুরারোগ্য ব্যধি ক্যান্সারে আক্রান্ত দুই সন্তানের জননী রহিমা বেগম (৩৭)এর পাশে দাড়িয়েছেন একজন মানবতাকর্মী, সমাজ সেবক,আমেরিকা প্রবাসি মো. দেলোয়ার মমিন। সে চান্দেরচর ইউনিয়নের মাইজচর গ্রামের কৃতি সন্তান ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি হারুন মমিনের ছোট ভাই।

অপর দিকে) ক্যান্সারে আক্রান্ত রহিমা বেগমের বাড়ি হোমনা পৌরসভার ১ নং ওয়ার্ডের কারারকান্দি গ্রামে, তার পিতার নাম আবদুর রশিদ।

জানাযায় দুই সন্তানের জননী রহিমা বেগম দুরারোগ্য ব্যাধি ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসা করাতে গিয়ে তার স্বামীর সহায় সম্বল সব শেষ করেছেন এখন অর্থাভাবে চিকিৎসা করতে পারছে না। চিকিৎসার অভাবে তার স্ত্রী চোখের সামনে মৃত্যুবরণ করবেন তা ভেবে দিশেহারা স্বামী বাচ্চু মিয়া। ফলে স্ত্রীর চিকিৎসার জন্য সাহায্য চেয়ে ঘুরছেন মানুষের ধারে ধারে। পরে হোমনা প্রেসরক্লাবের সভাপতি ও দৈনিক যুগান্তর পত্রিকার প্রতিনিধি মো.আবদুল হক সরকারের মাধ্যমে বিষয়টি জানতে পেরে আজ শুক্রবার (১২ মে) আমেরিকা প্রবাসি, সমাজ সেবক মোঃ দেলোয়ার মমিন তাঁর ভাতিজা ফারুক মমিনের মাধ্যমে ২০( বিশ হাজার) টাকা অর্থসহায়তা প্রদান করেছেন।

হোমনা প্রেস ক্লাবের সভাপতি মো.আবদুল হক সরকার, সাংবাদিক সৈয়দ আনোয়ার,আল আমিন সাহেদ,মনিরুজ্জামান মনির ও শোভারামপুর গ্রামের এনজিও কর্মী মো. আঃ হক সরকার,মাও আঃ কাদির সহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

এ দিকে ক্যান্সারে আক্রান্ত রহিমা বেগমের স্বামী বাচ্চু মিয়া সমাজের বিত্তশালী হৃদয়বান ব্যক্তিদের নিকট তার স্ত্রীর চিকিৎসার জন্য সাহায্য প্রার্থনা করেছেন।

রহিমা বেগমের চিকিৎসার জন্য কোন দানশীল ব্যক্তি সাহায্য করতে চাইলেঃ- নিম্ন ঠিকানায় যোগাযোগ করতে অনুরোধ করা হলো।

রহিমা বেগম,পিতা মৃত রশিদ মিয়া,স্বামী বাচ্চু মিয়া,গ্রাম কারারকান্দি, হোমনা পৌরসভা,হোমনা,কুমিল্লা।

মোবাইলঃ-01871871426,
বিকাশ পার্শোনাল নাম্বারঃ-01992970853

About Darpan News24

Check Also

হোমনায় সামাজিক সম্প্রীতি সমাবেশ অনুষ্ঠিত

হোমনা( কুমিল্লা) প্রতিনিধিকুমিল্লার হোমনায় ধর্মীয় সম্প্রীতি ও সামাজিক বন্ধনকে সুসংহত করার লক্ষ্যে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *