Breaking News

বাঞ্ছারামপুরে পুলিশের সঙ্গে বিএনপির সংঘর্ষে ছাত্রদল নেতা নিহত-পুলিশ সহ ১৩ জন আহত!

বাঞ্ছারামপুর(ব্রাহ্মনবাড়িয়া) প্রতিনিধি-
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুরে পুলিশের গুলিতে নয়ন নামে (২৪)এক ছাত্রদল নেতা নিহত হয়েছে।

শনিবার (১৯ নভেম্বর) বিকেলে বাঞ্ছারামপুর পৌর সভা সদরের মোল্লা বাড়ীর সামনে মেইন রোডে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত মো. নয়ন মিয়া উপজেলার চর শিবপুর গ্রামের রহমত উল্লার ছেলে সে সোনারামপুর ইউনিয়ন ছাত্রদলের সহ-সভাপতি ছিলেন।
এছাড়া এ ঘটনায় ওসিসহ ৬ পুলিশ সদস্য এবং বাঞ্ছারামপুর পৌর যুবদলের আহ্বায়ক ইমান আলী,সহ ৮ নেতাকর্মী আহত হয়েছে।
আহতরা হলেন -মো.হানিফ, মো.সাদ্দাম হোসেন,ছাত্রদল নেতা আনোয়ার হোসেন, মো. লিটন সরকার,ইব্রাহিম সরকার,রুবেল,শান্ত।অপর দিকে আহত পুলিশ সদস্যরা হলো বাঞ্ছারামপুর থানার ওসি নূরে আলম (৪১), পরিদর্শক (তদন্ত) তরুণ কান্দি দে (৩২), উপ-পরিদর্শক আফজাল হোসেন (৩০) ও বিকিরণ চাকমা (৩২), কনস্টেবল শফিকুল ইসলাম (৩৩) ও বিশ্বজিৎ চন্দ্র দাস (২৬)।

এদিকে ঘটনাস্থল থেকে বিএনপির দুই কর্মী রফিকুল ইসলাম ও সাইদুর রহমানকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে।

নয়নের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ছাত্রদলের সদস্য সচিব মহসিন হৃদয় বলেন, আগামী ২৬ নভেম্বর বিএনপির কুমিল্লা বিভাগীয় মহাসমাবেশ সফল করতে বিকেলে লিফলেট বিতরণ করছিলেন বিএনপি, যুবদল ও ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা।

এ সময় তারা বিভিন্ন স্লোগান দেন। মিছিলটি উপজেলা সদর হয়ে বাঞ্ছারামপুর থানা ও উপজেলা পরিষদ এলাকা অতিক্রম শেষে পুনরায় মোল্লাবাড়ির মসজিদের সামনে গিয়ে জড়ো হয়। সেখানে বাঞ্ছারামপুর থানার ওসি নূরে আলমের নেতৃত্বে পুলিশ সায়েদুজ্জামান কামালকে আটক করতে চাইলে পুলিশের সঙ্গে তাদের বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে ধাওয়া পালটা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।
এ সময় বিএনপি নেতাকর্মীদের লক্ষ করে পুলিশ গুলি চালালে নয়ন নামে এক ছাত্রদল কর্মীর পেটে গুলি লাগলে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন।পরে তাকে উদ্ধার করে বাঞ্ছারামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেওয়ার পথে সে মারা যান নয়ন।

বিএনপি নেতা সাবেক ভিপি সায়েদুজ্জামান কামাল বলেন, আগামী ২৬ নভেম্বর কুমিল্লার বিএনপির বিভাগীয় গণ সমাবেশ সফল করতে বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা শান্তিপূর্ণ মিছিল বের করি। কোনো রকম উসকানি ছাড়াই পুলিশ অতর্কিত মিছিলেগুলি ছোড়ে। এতে ছাত্রদল নেতা নয়ন গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যুবরণ করে।

এদিকে বাঞ্ছারামপুর মডেল থানার ওসি নূরে আলম বলেন, বিকালে বিএনপির নেতাকর্মীরা আকস্মিক মিছিল বের করে থানার সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় পুলিশকে লক্ষ করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। এ সময় কনস্টেবলরা এক রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়েন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পুলিশ সুপার মো. আনিসুর রহমান মুঠোফোনে জানান, বিএনপির লিফলেট বিতরণের সময় পুলিশের সাথে বাগবিতণ্ডা হয়। পরে পুলিশের সঙ্গে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এক সময় পুলিশ আত্মরক্ষায় শটগানের গুলি চালালে একজন গুলিবিদ্ধ হন।

About Darpan News24

Check Also

হোমনায় নবাগত উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা!

আব্দুল হক সরকারকুমিল্লার হোমনা উপজেলায় নবাগত উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার সৈয়দ মোঃ তৈয়ব হোসেনকে ফুলেল …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *